বীর বিক্রম আবদুল খালেক আর নেই

দেশ স্বাধীন হওয়ার প্রায় ৫০ বছর পরে খেতাব পাওয়া রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা বীর বিক্রম আবদুল খালেক আর নেই। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বুধবার (২৯ জুলাই) রাত ২টায় তিনি ইন্তেকাল করেন,।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। বীর বিক্রম আবদুল খালেকের বাড়ি গোদাগাড়ীর চাপাল গ্রামে। করোনার উপসর্গ নিয়ে গত সোমবার (২৭ জুলাই) তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে নমুনা পরীক্ষায় তার করোনা শনাক্ত হয়নি। গত ৬ জুন নতুন প্রকাশিত খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেটে তার নাম উঠে। গেজেট বিভ্রাটের কারেণ তার বীর বিক্রম স্বীকৃতি পেতে বিলম্ব হয়েছে।

বীর বিক্রম আবদুল খালেকের বড় ছেলে মাসুম আক্তার জামান জানান, হাসপাতালে ভর্তি করার তিন-চার দিন আগে থেকে তার বাবার জ্বর ও কাশির সমস্যা দেখা দেয়। গত রবিবার রাতে তিনি মাথার যন্ত্রণায় খুব কাতরাচ্ছিলেন। তাই সোমবার সকাল ১০টার দিকে তাকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়। এরপর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে তিনি মারা গেলেন।