জানা-অজানা

‘পলিথিন এবং প্লাস্টিক’পরিবেশের জন্য কতোটা ক্ষতিকারক ?

দৈনন্দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় ব্যবহার্য দ্রব্যের মোড়কে প্রতিদিনই পলিথিন এবং প্লাস্টিক ব্যবহার করা হচ্ছে । দ্রব্যগুলি ব্যবহারের পর বর্জ্য হিসাবে পলিথিন এবং প্লাস্টিক এর মোড়কগুলি ড্রেন, রাস্তা-ঘাট, মাঠে-ময়দানে, নদী-নালা, খালবিল এবং ফসলের মাঠে ফেলা হচ্ছে।ফলে পরিবেশ দূষিত হচ্ছে।

পলিথিন এবং প্লাস্টিক বর্জ্য মাটিতে ফেলার দরুন মাটি যেমন তার উর্বরতা হারাচ্ছে তেমন তার মৌলিকত্ব হারাচ্ছে, ড্রেন, নদী-নালা, খাল-বিলে ফেলার দরুন ড্রেনগুলি ময়লা পানি নিষ্কাশনে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে এবং নদী-নালা এবং খালবিলগুলি মাছ চাষে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

পলিথিন এবং প্লাস্টিক বর্জ্যগুলি মাটিতে পড়ার দরুন এই সমস্ত মাটিতে কোন ভৌত কাঠামো নির্মাণ করলেও ভৌত কাঠামো নির্মাণ দুর্বল হতে পারে।

পলিথিন ব্যাগ খুবই সহজ লভ্য হওয়ার কারণে শহর এলাকায় তরিতরকারির খোসা, মাছের অপ্রয়োজনীয় অংশ, খাবারের উচ্ছিষ্টাদি এবং বাসা-বাড়ির ময়লা আবর্জনাদি পলিথিন ব্যাগে ভরার পর সেগুলো কোন ডাস্টবিনে অথবা রাস্তার পাশে ফেলা হয়।

উল্লিখিত বর্জ্যগুলি পলিথিন ব্যাগে থাকার দরুন একটা মরাত্মক দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয় বা আশেপাশে ছড়িয়ে পড়ে এবং পথচারীসহ আশেপাশে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। সুন্দর বর্জ্য ব্যবস্থা বাস্তবায়নের মাধ্যমে উপরিউক্ত পরিত্যক্ত দ্রব্যগুলি পলিথিন ও প্লাস্টিক থেকে আলাদা করে নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলতে পারলে পরিত্যক্ত দ্রব্যগুলি থেকে উৎকৃষ্ট মানের জৈব সার তৈরি করা সম্ভব। নাইলন এবং রাবের বর্জ্যগুলির ব্যাপারে আমাদের চিন্তা-ভাবনা করা প্রয়োজন।

এছাড়াও প্যারাসিটামল যদি পরিবেশ বান্ধব কাগজে প্যাকেজজাত হতে পারে তাহলে ওষধ প্যাকেজ জাত করতে পরিবেশ বান্ধব কাগজ ব্যবহার করা উচিত।

আমাদের করণীয়-

রেডিও, সরকারি ও বেসরকারি টিভি চ্যানেগুলিতে এবং পত্র-পত্রিকায় এই সমস্ত বর্জ্যরে ক্ষতিকর দিকগুলো সাধারণ মানুষের দৃষ্টিগোচর করার পর কঠোর আইন প্রয়োগের মাধ্যমে পলিথিন এবং প্লাস্টিক এর বর্জ্যগুলি ব্যাপারে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে থাকা পলিথিন এবং প্লাস্টিক এর বর্জ্যগুলি একত্রিত করে পোড়াইয়া ফেলতে হবে এবং প্রজ্বলিত পলিথিন এবং প্লাস্টিক থেকে নির্গত ক্ষতিকর গ্যাস গাছপালার মাধ্যমে পরিশোধিত হতে পারে।

পলিথিন ব্যাগ এবং প্লাস্টিক দ্রব্য সামগ্রি যেখানে উৎপাদিত হচ্ছে সেখানেও মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর গ্যাস প্রতিনিয়িতই মানবদেহে এবং বায়ুম-লে মিশে যাচ্ছে এবং এইগুলির ব্যাপারে যারা বিশেষজ্ঞ তাদের গবেষণালব্ধ জ্ঞান প্রয়োগের মাধ্যমে উক্ত ক্ষতিকর গ্যাস নিঃসরণ ব্যাপারে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button